উজিরপুরে ভূমি অফিসের দালাল দেবাশীষের বিরুদ্ধে চাদাঁবাজীসহ নানা অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক।।  বরিশালের উজিরপুরে ভূমি অফিসের দালাল দেবাশীষ বিশ্বাষ এক অসহায় পরিবারের কাছ থেকে জমি-জমার বিরোধ মিমাংশার নামে নগদ ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ১৭ সেপ্টেম্বর বুধবার ভুক্তভোগী হুমায়ুন কবির সরদার অভিযুক্ত দেবাশীষের বিরুদ্ধে বরিশাল র‌্যাব-৮ অফিস, উজিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার,মডেল থানা,প্রেসক্লাব,শিকারপুর ইউপি চেয়ারম্যানসহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ ও ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা যায় উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নের সানুহার গ্রামের মৃত অনিল চন্দ্র বিশ্বাষের ছেলে দেবাশীষ বিশ্বাষ(৩৫),শিকারপুর ইউনিয়নের জয়শ্রী গ্রামের আনসার উদ্দিন সরদারের ছেলে হুমায়ুন সরদারের নিকট জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ মিমাংশার নামে ৭০ হাজার টাকা দাবী করে। কোন উপায়ন্তু না পেয়ে হুমায়ুন চরা সুদে ৫০ হাজার টাকা এনে দেবাশীষকে দেয়। এরপর কিছুদিন অতিবাহিত হলে শালিশি বৈঠকে আর দেবাশীষ উপস্থিত হন না। ফোন করলে নানা তালবাহানা করতে থাকে। পরে হুমায়ুন তার অসৎ উদ্দেশ্য বুঝতে পেরে টাকা ফেরৎ চায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে দেবাশীষ নারী নির্যাতন সহ বিভিন্ন মামলা দিয়ে জেল হাজতে ঢুকিয়ে দেয়া হবে বলে হুমকী দেয়। স্থানীয় সুত্রে আরো জানা যায় প্রতারক দেবাশীষ উপজেলা ভূমি অফিস এবং জরিপ অফিসে জমির মালিকদের ভূয়া ডিগ্রি,জাল দলিল,জাল পর্চা দিয়ে হাতিয়ে নেয় লক্ষ লক্ষ টাকা। আরো জানা যায় দালাল দেবাশীষ জমি দখল করে দেয়ার জন্য জমির মালিকদেরকে মোটা অংকের টাকা কন্টাক করে। এ ভাবেই গড়ছে টাকার পাহার। যেন দেখার কেউ নেই। প্রশাসন নীরব ভুিমকায়। তার ভয়ে মূখ খুলছেনা সাধারনরা। এ ব্যাপারে অসহায় হুমায়ুন সাংবাদিকদের কাছে কান্নার কন্ঠে বলেন দেবাশীষকে জমি-জমার বিরোধ মিমাংশার জন্য সুদে এনে ৫০ হাজার টাকা দিয়েছি। আমার কাজ না করে পুরো টাকাই আতœসাৎ করলো এবং আমাকে পথে বসিয়ে দিয়েছে। অভিযুক্ত দেবাশীষ জানান ৫০ হাজার টাকা আমি নেয়নী। তবে খরচ বাবদ কিছু টাকা নিয়েছি। ওসি শিশির কুমার পাল জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজণীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঐ প্রতারকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনের উর্দ্বোতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন ভুক্তভোগী পরিবার।