বরিশালে ইলিশ রক্ষায় সরব নৌপুলিশ ও কোস্টগার্ড। তবুও থামছেনা…..

মামুন-অর-রশিদ ॥
বরিশাল অঞ্চলে পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে সম্প্রতি জাটকা নিধন বেড়ে গেছে। বাজারে ইলিশের চাহিদা বৃদ্ধি ও দাম বাড়ার কারনে জাটকা নিধনের মহোৎসবে মেতেছে একটি চক্র। নানান সতর্ক বার্তা আর অভিযানের ভয়কে উপেক্ষা করে অসাধু ব্যবসায়ীদের ইন্ধনে জাটকা ইলিশ মারছে জেলেরা। প্রতিনিয়ত শত শত মন জাটকা (ছোট ইলিশ) শিকার করা হচ্ছে।
মঙ্গলবার কোস্টগার্ড অভিযান চালিয়ে প্রায় ৬ হাজার মিটার কারেন্ট জাল সহ বিপুল পরিমানে জাটকা আটক করে, সোমবার কাশিপুরের ফিশারী রোড থেকে মৎস অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা ৪০ মন জাটকা আটক করেন। গত বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বরিশালের বিভিন্ন নদীতে অভিযান পরিচালনা করে কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশ প্রায় ৪০মন জাটকাসহ কারেন্টজাল জব্দ করা হয়। এর আগে কোস্টগার্ডের বিশেষ অভিযানে ১শ মন জাটকা আটক করা হয় এবং বিপুল পরিমানে কারেন্টজাল আটক করে তা পুড়িয়ে দেয়। সব মিলিয়ে ইলিশ সম্পদ রক্ষায় সক্রিয় ভুমিকায় কর্তৃপক্ষ। কোস্টগার্ড, নৌ বাহিনী, মৎস অধিদপ্তর ও নৌ পুলিশের কর্মকর্তারা প্রতিনিয়ত অভিযান চালিয়ে জাটকা ইলিশ, কারেন্ট জাল ও জেলেদের আটক করছেন। নানান ধরনের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা  ও জরিমানা করা হচ্ছে।
বরিশাল কোস্টগার্ড এর কন্টিনজেন্ট কমান্ডার মোঃ মুনজুরুল করিম আপডেট নিউজকে জানান, জাটকা নিধন রোধকল্পে আমাদের সর্বাত্মক প্রচেস্টা ও অভিযান অব্যাহত আছে। আমরা আমাদের সাধ্যমত নজর রাখছি। শুধু আটক করাই নয়, কেউ যাতে নদীতে জাটকার জাল ফেলতে না পারে সেদিকে আমরা তিক্ষè দৃস্টি রাখতে চেস্টা করছি। তাছাড়া নৌ বাহিনী, মৎস অফিস, নৌ পুলিশ সহ আন্তবাহিনীর মধ্যে সমন্বয় করেই নজরদারী করা হচ্ছে। বরিশাল নৌ পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মোতালেব হোসেন আপডেট নিউজকে জানান, ইলিশ সম্পদ রক্ষায় জাটকা নিধনের রিরূদ্ধে আমাদের সর্বাত্মক প্রচেস্টা অব্যাহত আছে। গত সপ্তাহে অভিযানে বিপুল পরিমানে জাটকা সহ জাল আটক হয়েছে। এ সপ্তাহে কালাইয়া ৩ মন জাটকা, নাজিরপুরে ৪০মন, সদর এলাকায় ১৩ ব্যারেল জাটকা আটক হয়েছে। যারা এসব চাপিলা মাছ ও জাটকা মারছে তারা লোভে পরে মুলত আমাদের মৎস ভান্ডারকে ধ্বংস করছে। এ ধরনের যে কোন সংবাদ পেলেই আমরা অভিযান চালিয়ে থাকি। সাধারণ মানুষ আরো সচেতন হলে সেটা আরো সহায়ক হবে।

(Visited 1 times, 1 visits today)





%d bloggers like this: