বরিশালে পুলিশ সদস্যদের মারধর করে মাদক মামলার আসামী ছিনতাই।

শামীম আহমেদ বরিশাল।
বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট থানাধীন রতনপুর গ্রাম থেকে মাদক মামলার ত্রকাধিক আসামী লিমন বাবু(২৫)কে ২পিচ ইয়াবা সহ আটক করে কাজিরহাট থানার ক্যাম্প পুলিশ। লিমনকে আটক করার পরপরই লিমনের সহযোগীরা পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে লিমনকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। ত্রতে সহকারী সাব ইন্সেপ্রেক্টর হারুন সহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়। ত্রঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে কাজিরহাট থানায়।

জানা গেছে সোমবার মাগরিবের নামাজের পূর্বে রতনপুর গ্রাম থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ত্রকাধিক মাদক দ্রব্য মামলার আসামী লিমন বাবু (২৫)কে দুই পিচ ইয়াবা সহ আটক করে কাজিরহাট থানাধীন রতনপুর পুলিশ ক্যাম্পের কর্মরত সহকারী সাব ইন্সেপ্রেক্টর হারুন সহ কনস্টেবল মহিউদ্দিন ও কনস্টেবল ফজলু ।

মাদক ব্যাবসায়ী লিমনের আটকের সংবাদ পেয়ে বিদ্যানন্দনপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক আলাউদ্দিন মিয়া,তার পুত্র রুবেল মিয়া ও তার সহযোগী কবির, হুমাউন সহ ৮/১০ জন সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র-শস্ত্র ও লাঠি সোঠা নিয়ে পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে ত্রবং পুলিশদের মারধর করে রিমন বাবুকে ছাড়িয়ে নেয়।

ত্রসময় আহত হয় সহকারী সাব ইন্সেপ্রেক্টর হারুন ও তার দুই সহযোগী কনস্টেবল মহিউদ্দিন,ফজলু।
ত্ররা বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আজ প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়।

উক্ত ত্রলাকা থেকে ত্রকাধিক ব্যাক্তি নাম প্রকাশ করার শর্তে জানান লিমন বাবু ও তার সহযোগীদের ত্রকটি সন্ত্রাশী বাহিনী রয়েছে যার দাপুটে বীর দর্পে মাদক দ্রব্র ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে॥

ত্রব্যাপারে কাজিরহাট থানা ইনচার্জ মাসুম মৃধার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্বতা স্বীকার করেন।
ত্রছাড়া লিমনের বিরুদ্বে বেশ কয়েকটি মামলা আছে বলেও স্বীকার করেন।

পুলিশের উপর হামলা ও আসামী ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় সাব ইন্সেপ্রেক্টর হারুন বাদী হয়ে প্রথক দুটি ধারায় কাজিরহাট থানায় মামলা দায়ের করেছে।

(Visited 1 times, 1 visits today)





%d bloggers like this: