২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, রবিবার

শিরোনাম
সোমবার শুরু বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবলের জাতীয় পর্ব খুলনায় ৩৯ লাখ জাল টাকাসহ মামুন আটক সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে দুর্বৃত্তের আগুনে স্কুলের শ্রেণিকক্ষ ও আসবাবপত্র পুড়ে ছাই বরিশালে এলএলবি পরীক্ষায় ২৫ জন বহিস্কার মুঠোফোনে প্রেম, বগুড়ায় এসে সব হারালো গাজীপুরের কিশোরী ঝালকাঠি এন এস কামিল মাদরাসার ০৭-০৯ ব্যাচ প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের ১৩তম বন্ধু মিলন উৎসব অনুষ্ঠিত বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরার নৌকাসহ ২৪ শ্রীলঙ্কান গ্রেফতার বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট সিরিজ: সেঞ্চুরিয়ান আরভিনের উইকেট দিন শেষে স্বস্তিতে টাইগাররা বর্ণাঢ্য আয়োজনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় দিবস ও ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

ভোট না পেলেও আ.লীগের আমলে রাজশাহীর উন্নয়ন হয়: প্রধানমন্ত্রী

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনলাইন ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রাজশাহী আসলে অবহেলিত একটি অঞ্চল। যদিও আমরা সেখানে খুব একটা ভোট পেতাম না। দেখতাম- তার ভোট দিচ্ছে অন্য জায়গায়। কিন্তু রাজশাহীর মানুষেরা সুবিধা পাচ্ছে যখন আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকে। ভোট না পেলেও আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে রাজশাহীর উন্নয়ন হয়।
বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমের রাজশাহীর শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেশন অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টার উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন তিনি।
শেখ হাসিনা বলেন, উন্নয়নে পিছিয়ে থাকা রাজশাহীর মানুষকে আমরা প্রযুক্তি শিক্ষার দিকে গুরুত্ব দিচ্ছি। সেজন্য সেখানে হাই-টেক পার্ক ও আইটি সেন্টার গড়ে তোলা হচ্ছে। আশা করি- শেখ কামাল আইটি সেন্টারের মাধ্যমে প্রযুক্তির শিক্ষা নিয়ে এ অঞ্চলের উন্নয়ন হবে। অনেক কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। এর মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের উদ্যোগ আরও এক ধাপ এগিয়ে যাবে।
প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা নতুন প্রজন্মকে এমনভাবে গড়ে তুলতে চাই, যাতে তারা প্রতিযোগিতমূলক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে পারে। এজন্য প্রথমত প্রযুক্তি শিক্ষা একান্ত প্রয়োজন। দ্বিতীয়ত, কর্মসংস্থান ও কর্মদক্ষতা বাড়ানোর জন্য নতুন নতুন ক্ষেত্র প্রয়োজন। এজন্য আমরা ক্ষমতায় আসার পর যেসব খাত সরকারি ছিল সেগুলো উন্মুক্ত করে দিয়েছি। দেশের উন্নয়নে বহুমুখী পদক্ষেপও নিয়েছি।
অনুষ্ঠানে রাজশাহী থেকে যুক্ত হন জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক।
এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ন কবীর খন্দকার, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার, আরএমপি কমিশনার হুমায়ন কবির প্রমুখ।
সেখান থেকে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলেন, আইটি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান উল্কাসেমি’র ডিরেক্টর মমতাজ ফারুকী চৌধুরী এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) তড়িৎ কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির রহমান বাধন।
একই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী একটি পাওয়ার প্ল্যান্ট এবং সাতটি জেলা ও ২৩টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নও কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। পরে তিনি বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের মাসব্যাপী নাট্য উৎসব উদ্বোধন করেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network