২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, রবিবার

শিরোনাম
সোমবার শুরু বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবলের জাতীয় পর্ব খুলনায় ৩৯ লাখ জাল টাকাসহ মামুন আটক সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে দুর্বৃত্তের আগুনে স্কুলের শ্রেণিকক্ষ ও আসবাবপত্র পুড়ে ছাই বরিশালে এলএলবি পরীক্ষায় ২৫ জন বহিস্কার মুঠোফোনে প্রেম, বগুড়ায় এসে সব হারালো গাজীপুরের কিশোরী ঝালকাঠি এন এস কামিল মাদরাসার ০৭-০৯ ব্যাচ প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের ১৩তম বন্ধু মিলন উৎসব অনুষ্ঠিত বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরার নৌকাসহ ২৪ শ্রীলঙ্কান গ্রেফতার বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট সিরিজ: সেঞ্চুরিয়ান আরভিনের উইকেট দিন শেষে স্বস্তিতে টাইগাররা বর্ণাঢ্য আয়োজনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় দিবস ও ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

করোনাভাইরাস : মৃতের সংখ্যা ১৪৮৩, আক্রান্ত ৬৪ সহস্রাধিক

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার চারশ ৮৩ জনে। আজ শুক্রবার সে দেশের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হুবেই প্রদেশে আক্রান্তের হার কমেছে। গতকাল যেখানে জানানো হয়েছিল যে, আগের দিন বুধবার ২৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে, সেখানে আজ জানানো হলো- গত বৃহস্পতিবার ১১৬ জন মারা গেছে।

এছাড়া আগের দিন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১৪ হাজার আটশ ৪০ জন। বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে  দাবি করা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে ৬০ হাজারের বেশি মানুষ বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। সেখানে আজ শুক্রবার জানানো হলো- গতকাল আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজার আটশ ২৩ জন।

অন্যদিনগুলোতে মৃতের সংখ্যা এবং আক্রান্তের হার ক্রমেই বাড়ছিল; তবে এই প্রথম সেই হার তুলনামূলকভাবে কমেছে। জানা গেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যারা মারা গেছেন, আগে থেকেই তারা শনাক্ত হয়েছিলেন।

 

চীনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ৬৪ হাজার ছয় শতাধিক মানুষ এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে আশার ব্যাপার এই যে, চার হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। আবার করোনাভাইরাসে আক্রান্তের শঙ্কায় রক্ত পরীক্ষার পর বহু মানুষের ফল ইতিবাচক এসেছে।

এরই মধ্যে করোনাভাইরাসের দাপ্তরিক নাম কোভিড-১৯ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ভাইরাসটিকে সারাবিশ্বে একই নামে ডাকার জন্য এই নামকরণ করেছে সংস্থাটি।

হুবেই প্রদেশের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষার বদলে স্বল্প সময়ে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তিকে শনাক্ত করার কাজ চলছে। সে কারণে সবসময় ফলাফল নির্ভুল হওয়াটা কঠিন। সেজন্য সঙ্কট এখনই কেটে যাওয়ার বাণী শোনাতে পারছেন না স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network