৪ঠা আগস্ট, ২০২০ ইং, মঙ্গলবার

শিরোনাম
মুলাদীতে পেয়ারা ব্যবসায়ী বজ্রপাতে নিহত রূপসা উন্নয়ন সংস্থার পক্ষ থেকে ফলজ বৃক্ষ রোপন সরকারী মুলাদী কলেজে বৃক্ষরোপন করেন ঢাকাস্থ মুলাদী সমিতি উজিরপুরে ফুটবল খেলায় দন্দের জের ধরে কিশোর গ্যাং এর হামলা, ব্যাবসায়ী আহত মুলাদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জীবনের ঝুকি নিয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন ডাক্তারগন উজিরপুর বাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছে কবির হোসেন কাজিরচর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের উদ্যোগে মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যানের মায়ের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মোনাজাত কুড়িগ্রাম জেলা যুবদলের কমটি নিয়ে বাণিজ্যের অভিযোগ ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি মুলাদীতে দুই মাসের মধ্যে বয়াতী বাড়ীর রাস্তার ব্রীজের এপ্রোজ কালর্ভাট বিলিন

গাজীপুরে ৫৭৯ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

আপডেট: মার্চ ২৫, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

গাজীপুরে ৫৭৯ জন প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে এবং ৪৭ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এছাড়া সহস্রাধিক বিদেশ থেকে গাজীপুর ফেরত নাগরিককে পুলিশ ও গ্রাম পুলিশসহ সংশ্লিষ্টকর্মীরা খুঁজছেন। এর মধ্যে মালয়েশিয়া ফেরত এক আসামিও কারাগারে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

গাজীপুরে সংশ্লিষ্ট উপজেলা কর্মকর্তা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের মঙ্গলবারের তথ্যানুয়ায়ী ১ মার্চের পর থেকে দেশে ফেরতের তালিকানুয়ায়ী শ্রীপুর উপজেলায়-২৫৪ জন প্রবাসীর মধ্যে ১৩০ জন, কালীগঞ্জ উপজেলায়-২৫৭ জন প্রবাসীর মধ্যে ৮৪ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এ উপজেলায় ১০৩ জন কোয়ারেন্টাইনের সময় অতিক্রম করে মুক্ত হয়েছেন। অন্যদের পাওয়া যায়নি।এছাড়া কালিয়াকৈর উপজেলায় ৮৭ জন প্রবাসীর মধ্যে ৭৯ জন, কাপাসিয়ায় ২৯৭ জন প্রবাসীর মধ্যে ৯৯ জন, গাজীপুর সদর উপজেলায় ১৫ মার্চের পর থেকে ২৪৪ জনের মধ্যে ৯২ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। তবে সিভিল সার্জন ডা. মো. খায়রুজ্জামান বুধবার দুপুরে জানান, সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী গাজীপুরে ৫৭৯ জন প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে এবং ৪৭ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। তবে তিনি এসময় গাজীপুরে ফেরত প্রবাসীদের সংখ্যা জানাতে পারেননি।গাজীপুর জেলা কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. নেছার আহমেদ জানান, টঙ্গী (পূর্ব) থানার চেক ডিজ অনার মামলায় গ্রেফতার হওয়া এক আসামিকে কারাগারে ভেতরে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সম্প্রতি মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফিরে গ্রেফতার হলে আদালতের নির্দেশে তাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

এছাড়া ওই কারাকর্মকর্তা আরও জানান, তার কারাগারেও করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে নেয়া হয়েছে অতিরিক্ত সতর্কতা। বাইরে থেকে কারাগারের ভেতরে প্রবেশের সময় প্রতি আসামিকে সাবান দিয়ে হাত ধৌত করতে হয়, তাপমাত্রা মাপা হয়। কোয়ারেন্টাইনের শর্তমতে নতুন বন্দিকে ১৪ দিন আলাদা রাখা হবে। আসামিদের সঙ্গে স্বাক্ষাৎ প্রার্থীদেরও একইভাবে কারা ফটকে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network