১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, রবিবার

শিরোনাম
বরিশাল ক্রাইম নিউজের ৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আগামীকাল শরীয়তপুরে বিরিয়ানি খেয়ে অভিভাবকসহ ৩৫ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল, সাধারণ সম্পাদক বাবু ইন্দোরে ভারতীয় বোলারদের দাপট, ইনিংস ও ১৩০ রানে হার বাংলাদেশের অসৎ উপায়ে বিরিয়ানি খাওয়ার চেয়ে নুন-ভাত খাওয়া সম্মানের: প্রধানমন্ত্রী পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দাম বাড়ানোর সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করা হবে: প্রধানমন্ত্রী গাজীপুরে বনের ভেতর শিশুর খণ্ডিত লাশ, কামড়ে খেল শিয়াল-কুকুর শিক্ষার্থী হত্যাচেষ্টার ঘটনায় উত্তাল রাবি, মহাসড়ক অবরোধ

বাবুগঞ্জ আগরপুরে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেয়া স্কুল ছাত্র ইমন ১২ দিন ধরে আইসিইউতে

আপডেট: অক্টোবর ১৬, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক।। বন্ধুদের সাথে মটর বাইকে পুজা মন্ডপে ঘুরতে গিয়ে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেয়া ইমাম হোসেন ইমন গত ১২ দিন ধরে আইসিইউতে সংগাহীন অবস্থায় রয়েছে। নবম শ্রেণি পড়ুয়া ইমন (১৪) বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা নাসির উদ্দিন বেপারীর ছেলে।বন্ধুরা তাকে চলন্ত মটর বাইক থেকে ফেলে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল। এমন অভিযোগে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে ১৩ অক্টোবর বাবুগঞ্জ থানায় একটি মামলাও দায়ের করেছে। স্কুল ছাত্র ইমন’র পিতা নাসির উদ্দিন বেপারী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। পুলিশ সোহেল হাওলাদার নামক এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে। সে বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে।

জানাগেছে, বাবুগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা কৃষক নাসির উদ্দিন বেপারীর পুত্র জাহপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনী স্কুল ছাত্র ইমাম হোসেন ইমনকে গত ৫ অক্টোরব রাত ৮ টার দিকে পুজা দেখার নাম করে একই গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র নুরুন নবীন মেবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে যায়।

এসময় তার সাথে নবিনের আরো ৪ সহযোগী ঠাকুর মল্লিক গ্রামের জাহাঙ্গীরের পুত্র হাসান ইসলামপুর গ্রামের আমির হোসেন হাওলাদারের পুত্র সোহেল চরহোগল পাতিয়া গ্রামের ফারুক আকনের পুত্র মুন্না সোরহাব হোসেনর পুত্র রিহৃয় মাল একত্রে বাড়ি থেকে বের হয় ।

ইমনের বাবা নাসির উদ্দিন জানান, ওই দিন রাতে বন্ধুরা বিভিন্ন পুজা মন্ডপে ঘুরে বেডানোর এক পর্যায়ে বন্ধুদের সাথে ইমনের মতপার্থক্য হলে তাকে চলন্ত মটর বাইক থেকে ফেলে হত্যার চেষ্ঠা করে নুরুন নবী, সোহেল, হাসান ও মুন্না , রিদয়। এক পর্যায়ে আহত স্কুল ছাত্র ইমনকে নুরুন নবীর বাড়িতে একটি ঘরে অটকে রেখে হত্যার জন্য দ্বিতীয় দফায় নির্যাতন করে।

পরদিন ৬ অক্টোবর দুপুর দেড়টার দিকে ইমনকে আটক রাখার খবর পেয়ে অচেতন অবস্থায় নবীনদের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতী ঘটলে আশংকাজনক অবস্থায় তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। বর্তমানে ওই হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ইমাম হোসেন ইমন এখনও শংকামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বাবুগঞ্জ থানার ওসি মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, মটরবাইকে করে বন্ধুদের ঘুরতে সাথে যাওয়া ইমনের বাবার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা নিয়েছি একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে তদন্ত সপক্ষে ব্যাবস্থা নেয়া হবে ।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network