২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং, বুধবার

রোনালদো-পিয়ানিচের গোলে ইউভেন্তুসের জয়-আপডেট নিউজ

আপডেট: অক্টোবর ২০, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ইউভেন্তুস স্টেডিয়ামে শনিবার সেরি আর ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে মাওরিসিও সাররির দল।

ম্যাচের সপ্তদশ মিনিটে প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগেই দলকে এগিয়ে দেন রোনালদো। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো বল প্রতিপক্ষের পা হয়ে পেয়ে যান রোনালদো। দারুণ ক্ষীপ্রতায় ডি-বক্সে ঢুকে ডিফেন্ডারকে কোনো সুযোগ না দিয়ে পোস্ট ঘেঁষে ঠিকানা খুঁজে নেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

ক্লাব ও জাতীয় দল মিলে ক্যারিয়ারে রোনালদোর এটি ৭০১তম গোল। এবারের সেরি আয় এটা তার চতুর্থ গোল।

এগিয়ে যাওয়ার আনন্দ অবশ্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি শিরোপাধারীদের। সতীর্থের হেডে ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে বুক দিয়ে নামিয়ে জোরালো কোনাকুনি শটে দূরের পোস্ট দিয়ে সমতা টানেন ডিফেন্ডার দানিলো লারেনজিইরা।

দ্বিতীয়ার্ধের নবম মিনিটে কিছুটা সৌভাগ্যসূচক গোলে আবারও এগিয়ে যায় ইউভেন্তুস। রোনালদোর শট একজনের পায়ে লেগে বল পেয়ে যান অরক্ষিত পিয়ানিচ। প্রথম ছোঁয়ায় নিচু শট পোস্ট ঘেঁষে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইতালির এই মিডফিল্ডার।৬৪তম মিনিটে গোলরক্ষকের ‘ডাবল সেভে’ ব্যবধান বাড়াতে পারেনি ইউভেন্তুস। রোনালদোর পাস পেয়ে গনসালো হিগুয়াইনের নিচু শট লুকাস ফিরিয়ে দেওয়ার পর আলগা বল ধরে আবারও শট নেন আর্জেন্টাইন এই স্ট্রাইকার, এবার বাধা হয়ে দাঁড়ান পোলিশ গোলরক্ষক।

শেষ দিকে সমতা টানার সুবর্ণ সুযোগ এসেছিল অতিথিদের সামনে। তবে ইতালির ২২ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড রিকার্দো ওরসোলিনির হেড ক্রসবারে বাধা পেলে পুরো ৩ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে টানা আটবারের চ্যাম্পিয়নরা।

আসরে একমাত্র অপরাজিত দল ইউভেন্তুস আট ম্যাচে সাত জয় ও এক ড্রয়ে ২২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। ৪ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে এক ম্যাচ কম খেলা ইন্টার মিলান।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network