১৬ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, শনিবার

আ.লীগ-যুবলীগ দ্বন্দ্বে এমপি’র জনসভা পণ্ড, মঞ্চ ভাঙচুর

আপডেট: নভেম্বর ৭, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনলাইন ডেস্ক: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ-যুবলীগ দ্বন্দ্বে রাস্তার ফলক ও জনসভার মঞ্চ ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। এঘটনায় পণ্ড হয়ে গেছে স্থানীয় এমপি’র জনসভা। বিব্রতকর পরিস্থিতিতে আলোচনা সভা না করেই ফিরে এসেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ডা. শামিল উদ্দীন আহমেদ শিমুল।
তবে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, রাস্তার ফলক উম্মোচন অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ-যুবলীগ নেতাদের আমন্ত্রণপত্র না পাওয়াকে কেন্দ্র করে উদ্বোধনী ফলক ও মঞ্চ ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।
বুধবার শিবগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের বাজিতপুর বাহাদুরটোলা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, আরডিআরআইডিপি প্রকল্পের আওতায় শ্যামপুর ইউনিয়নের বাজিতপুর বাহাদুরটোলায় এলাকায় প্রায় ৩৭ লাখ টাকা ব্যায়ে ৫৭০ মিটার রাস্তার নির্মাণ করে এলজিইডি। এই উপলক্ষ্যে বুধবার কাজের ফলক উম্মোচনের কথা ছিল স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. শামিল উদ্দীন আহমেদ শিমুল এমপি’র। এমপি শিমুল অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য দায়িত্ব দেন স্থানীয় ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানাকে। বিষয়টি ভালভাবে নেয়নি স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা।
নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, মুল সংগঠন আওয়ামী লীগকে বাদ দিয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা ও তার গ্রামের কয়েকজন যুবককে দায়িত্ব দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের অসম্মান করা হয়েছে।
বুধবার দুপুরে প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল রাস্তার ফলক উম্মোচন ও আলোচনা সভা করতে গেলে বাধার সম্মুখীন হন। পরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অবস্থান নেন এমপিসহ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যাওয়া নেতা-কর্মীরা। পরে দুপুরে আলোচনা অনুষ্ঠান না করেই শুধুমাত্র ফলক উম্মোচন শেষে ফিরে আসেন এমপি শিমুল।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, শ্যামপুর ইউনিয়ন শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান ভোদন প্রমূখ।
শ্যামপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা জানান, শ্যামপুর ইউনিয়ন শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান ভোদনের সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ফলক ও মঞ্চ ভাঙচুর করেছে এবং আলোচনা সভা ভন্ডুল করেছে। যদিও তার সাথে পূর্বে আলোচনা সাপেক্ষে এই উদ্বোধনী ফলক উম্মোচন ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
এব্যাপারে শ্যামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান ভোদন জানান, একটি রাস্তার উদ্বোধন অনুষ্ঠানের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। আওয়ামী লীগের দলীয় এমপি অথচ আমন্ত্রণ পত্রে ৫নং ওয়ার্ডবাসীর পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ পত্র দেয়া হয়। এই নিয়ে স্থানীয় নেতা-কর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। পরে ফলকটি আমি বসানো ব্যবস্থা করি। আওয়ামী লীগ অফিসে বসে আমার আলোচনার মাধ্যেমে ভুল বোঝাবুঝির অবসান হয়েছে।
শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. আতাউর রহমান জানান, স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝির কারণে কিছু সমস্যা হয়েছিল। যা এমপি ডা. শিমুলের উদ্যোগে সমাধান শেষে রাস্তার ফলক উম্মোচন ও দোয়া হয়।
সংসদ সদস্য ডা. শামিল উদ্দীন আহমেদ শিমুল জানান, ভুল বোঝাবুঝি থেকেই এমন ঘটনা ঘটেছে। আমি নিজে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের নিয়ে ফলক উম্মোচন করেছি। আলোচনার মাধ্যমে আমরা সমস্যা সমাধান করে নিয়েছি। তবে মঞ্চটি ক্ষতিগ্রস্থ থাকায় আলোচনা অনুষ্ঠানে যোগ দেই নি।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network