১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

৯/১১ সন্ত্রাসী হামলায় লাদেনের জড়িত থাকার প্রমাণ নেই: তালেবান মুখপাত্র

আপডেট: আগস্ট ২৬, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনলাইন ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার ও পেন্টাগনে হামলার সঙ্গে ওসামা বিন লাদেনের যুক্ত থাকার কোনো প্রমাণ নেই বলে দাবি করেছে তালেবান। বুধবার তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ এমন দাবি করেন। যদিও এখন পর্যন্ত অসংখ্য প্রমাণ রয়েছে যে ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের ওই সন্ত্রাসী হামলার পেছনে ছিলেন সন্ত্রাসী সংগঠন আল-কায়দার সাবেক প্রধান বিন লাদেন। এ খবর দিয়েছে ফক্স নিউজ।

খবরে বলা হয়, এনবিসি নিউজের সাংবাদিক রিচার্ড এঙ্গেলের সঙ্গে আফগানিস্তানে এক সাক্ষাৎকারে এমন দাবি করেন মুজাহিদ। তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে, তালেবান নতুন করে ক্ষমতা দখলের পর আফগানিস্তান কি আবারও সন্ত্রাসের ঘাটি হয়ে উঠবে কিনা। এর উত্তরে তিনি বলেন, এমন কোনো প্রমাণ নেই যে ওসামা বিন লাদেন ওই হামলার সঙ্গে জড়িত ছিল। তারপরেও আমরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছি আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করে কারও বিরুদ্ধে কোনো হামলা চালানো হবে না। এরপর তাকে আবারও প্রশ্ন করা হলে মুজাহিদ জবাব দেন, ২০ বছর পরে এসেও বিন-লাদেনের ওই হামলার সঙ্গে যুক্ত থাকার কোনো প্রমাণ নেই।

আফগানিস্তানে যুদ্ধ করতে আসার কোনো বৈধতাই ছিল না। বিন-লাদেনকে অভিযুক্ত করা ছিল যুদ্ধের অযুহাত সৃষ্টি।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে এক বার্তায় বিন লাদেন ১১ সেপ্টেম্বরের ওই হামলার দায় স্বীকার করেছিলেন। এছাড়া তার এই হামলার সঙ্গে যুক্ত থাকার পক্ষে শক্তিশালী প্রমাণ উপস্থাপন করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তালেবানের নিয়ন্ত্রণে থাকা আফগানিস্তানে নিরাপদে বসে বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাসী হামলা পরিচালনা করছিল আল-কায়দা। এর প্রতিক্রিয়ায়ই ২০০১ সালে আফগানিস্তান আক্রমণ করে যুক্তরাষ্ট্র। তালেবানকে এর আগে আল-কায়দা নেতাদের যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেয়ার আহ্বান জানালেও মানেনি তারা। আফগানিস্তান অভিযানের এক মাসের মধ্যেই তালেবানকে ক্ষমতাচ্যুত করে পশ্চিমা বাহিনী। যদিও ওসামা বিন লাদেনকে ধরতে বহুদিন লেগে যায়। অবশেষে ২০১১ সালের ১লা মে পাকিস্তানে অভিযান চালিয়ে লাদেনকে হত্যায় সমর্থ হয় যুক্তরাষ্ট্র।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network