১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাবা-মেয়েকে পথরোধ করে মারধর

আপডেট: জুন ১৫, ২০২৪

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:: প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাবা ও মেয়েকে বেধড়ক পেটানো অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় সঙ্গে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ৪৫ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয় হামলাকারীরা।ঝালকাঠি সদর উপজেলার পিপলিতা গ্রামে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেল পৌনে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

বাবা-মেয়েকে হামলাকারী অভিযুক্তরা হলেন – দক্ষিণ পিপলিতা এলাকার মৃত. আব্দুল কাদের মীরবহর চান মিয়ার ছেলে ওমর ফারুক (২৮), উসমান (২৫), আব্দুল (২২)।

আহতরা হলেন – স্থানীয় কলেজছাত্রী নুসরাত জাহান মুনিয়া ও তার বাবা সৈয়দ তোফাজ্জেল হোসেন।গুরুতর আহত হওয়ায় ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন মুনিয়া। অন্যদিকে তোফাজ্জেল হোসেন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, তার বড় মেয়ে নিশাত জাহান তানিয়াকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় স্থানীয় যুবক ওমর ফারুক (২৮)। প্রস্তাবটি পরিবারের কাছে জানালে আমরা রাজি হইনি। বৃহস্পতিবার ব্যাংক থেকে কোরবানির জন্য ৫০ হাজার টাকা তুলে আরেক মেয়ে নুসরাত জাহান মুনিয়াকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলাম। ওমর ফারুক (২৮), উসমান (২৫), আব্দুল (২২) পথরোধ করে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়। শাবল, লোহার রড ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। সঙ্গে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা ও মুনিয়ার কানের ৪৫ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণের গহনা ছিনিয়ে নেয়। এসময় ডাকচিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। মুনিয়া গুরুতর জখম অবস্থায় জরুরিসেবা ৯৯৯ – এ কল দিলে সদর থানা পুলিশের সহযোগিতায় উদ্ধার হই আমরা। পরে আমরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিই। মুনিয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন সৈয়দ তোফাজ্জেল হোসেন।সদর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম জানান, দক্ষিণ পিপলিতা গ্রামের সৈয়দ তোফাজ্জেল হোসেন মারধরের একটি অভিযোগ করেছেন। আমরা তদন্ত করছি, পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
error: এই সাইটের নিউজ কপি বন্ধ !!
Website Design and Developed By Engineer BD Network