৩রা আগস্ট, ২০২০ ইং, সোমবার

শিরোনাম
উজিরপুর বাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছে কবির হোসেন কাজিরচর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের উদ্যোগে মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যানের মায়ের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মোনাজাত কুড়িগ্রাম জেলা যুবদলের কমটি নিয়ে বাণিজ্যের অভিযোগ ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি মুলাদীতে দুই মাসের মধ্যে বয়াতী বাড়ীর রাস্তার ব্রীজের এপ্রোজ কালর্ভাট বিলিন ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর (দঃ) ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আশিকুর রহমান খান মুলাদী থানায় মুজিববর্ষে বৃক্ষরোপন’র শুভ উদ্বোধন আলোকিত মুলাদীর উদ্যোগে মাস্ক বিতরন আপডেট নিউজ বিডি ২৪.কম’ পরিবারের পক্ষ থেকে সকলকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা ছোট ভাইয়ের গুলিতে বড় ভাই নিহত! পিস্তল, গুলি, চাকু, মাদকদ্রব্য সহ আটক-০১

আমিরের বিধ্বংসী বোলিংয়ে চরম বিপর্যয়ে রাজশাহী

আপডেট: জানুয়ারি ১৩, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মোহাম্মদ আমিরের পেস আক্রমণে দিশেহারা রাজশাহী রয়েলস। ফাইনাল নিশ্চিত করার ম্যাচে ১৫৯ রানের সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমে মাত্র ৩৩ রানে প্রথম সারির ৬ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে চরম বিপর্যয়ে আন্দ্রে রাসেলের নেতৃত্বাধীন দলটি।

খেলাধুলা: ইনিংসের শুরুতেই রাজশাহী শিবিরে একে একে তিনটি আঘাত হানেন খুলনার পাকিস্তান সেরা পেসার মোহাম্মদ আমির। তার গতির বলে ইনিংসের তৃতীয় বলেই স্ট্যাম্প ভেঙে যায় রাজশাহীর ওপেনার লিটন কুমার দাসের।

দলীয় ২২ রানে আমিরের বলে মুশফিকের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন অন্য ওপেনার আফিফ হোসেন। রানের খাতা খুলার আগেই আমিরের বলে শামসুর রহমান শুভর হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন অলক কাপালি।

আমিরের পর রাজশাহী শিবিরে আঘাত হানেন রবি ফ্রাঙ্কলিঙ্ক। তার বলে রাইলি রুশোর দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফেরেন রাজশাহীর ইংলিশ ব্যাটসম্যান রবি বোপারা। দলের এমন কঠিন বিপর্যয়ের দিনে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে পারেননি অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল।

ইনিংসের ষষ্ঠ এবং আমির নিজের ব্যক্তিগত চতুর্থ ও শেষ ওভারের পঞ্চম বলে আন্দ্রে রাসেলকে ক্যাচ তুলতে বাধ্য করেন। ঠিক পরের বলে ক্যাচ তুলে দেন নতুন ব্যাটসম্যান ফরহাদ রেজা। কিন্তু খুলনার তরুণ বোলার শহিদুল ইসলাম ক্যাচটি তালুবন্দি করতে পারেননি। ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান দিয়ে ৪ উইকেট শিকার করেন আমির।

এরপর দলীয় অষ্টম ওভারে রাজশাহী শিবিরে আঘাত হানেন শহিদুল ইসলাম। তার বলে নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন ফরহাদ রেজা। তার বিদায়ে ৩৩ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে কার্যত ছিটকে যায় রাজশাহী।

সোমবার সন্ধ্যায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্যাটিংয়ে নেমে নাজমুল হোসেন শান্তর ফিফটিতে ভর করে ৩ উইকেটে ১৫৮ রান সংগ্রহ করে খুলনা টাইগার্স। দলের হয়ে ৫৭ বলে ৭টি চার ও ৪টি ছক্কায় সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন শান্ত। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন খুলনার এ তরুণ ওপেনার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

খুলনা টাইগার্স: ২০ ওভারে ১৫৮/৩ (শান্ত ৭৮*, শামসু ৩২, মুশফিক ২১, নজিবুল্লাহ ১২)।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network