৩রা আগস্ট, ২০২০ ইং, সোমবার

শিরোনাম
উজিরপুর বাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছে কবির হোসেন কাজিরচর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের উদ্যোগে মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যানের মায়ের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মোনাজাত কুড়িগ্রাম জেলা যুবদলের কমটি নিয়ে বাণিজ্যের অভিযোগ ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি মুলাদীতে দুই মাসের মধ্যে বয়াতী বাড়ীর রাস্তার ব্রীজের এপ্রোজ কালর্ভাট বিলিন ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর (দঃ) ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আশিকুর রহমান খান মুলাদী থানায় মুজিববর্ষে বৃক্ষরোপন’র শুভ উদ্বোধন আলোকিত মুলাদীর উদ্যোগে মাস্ক বিতরন আপডেট নিউজ বিডি ২৪.কম’ পরিবারের পক্ষ থেকে সকলকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা ছোট ভাইয়ের গুলিতে বড় ভাই নিহত! পিস্তল, গুলি, চাকু, মাদকদ্রব্য সহ আটক-০১

ফ্ল্যাট কেনার টাকার জন্য শিশু অপহরণ, বাকেরগঞ্জের ইশরাত, নুশরাতসহ গ্রেপ্তার ৪

আপডেট: জানুয়ারি ১৯, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : জুলি-তুলি দুই বোন গার্মেন্ট শ্রমিক। তাদের স্বপ্ন ছিল বিপুল টাকা উপার্জন করে ফ্ল্যাট কিনবেন। সুখী জীবন-যাপন করবে। স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে দুই বোন অপরাধে জড়িয়ে পড়েন। ভাড়াটিয়ে সেজে ১৬ মাসের এক শিশুকে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবি করেন ২০ লাখ টাকা।

গতকাল শনিবার রাতে মুক্তিপণের টাকা আনতে গিয়ে র‌্যাবের জালে আটকা পড়ে গ্রেপ্তার হয়েছেন তারা। নতুন ফ্ল্যাটের পরিবর্তে দুইসহযোগীসহ তাদের স্থান হয়েছে কারাগারে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটেছে গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানার বোর্ড বাজারের শরীফপুর এলাকায়।

আটকৃতরা হলেন বরিশালের বাকেরগঞ্জের সুন্দরকাঠি গ্রামের কামরুজ্জামানের মেয়ে জেরিন ইশরাত জুলি (২২) ও তার ছোট বোন তারিন নুশরাত তুলি (১৬)। গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানার চান্দুরা এলাকার বাবু মিয়ার বাড়িতে ভাড়াটে তারা স্থানীয় একটি গার্মেন্টে চাকরি করতেন।

আটক তাদের দুইসহযোগী হচ্ছেন শরীয়তপুরের ডামুডা থানার গোয়ালকুয়া গ্রামের আব্দুর রউফ সিকদাদের ছেলে আমিনুল ইসলাম (২৯), একই জেলার সখিপুর থানার দুলারচর গ্রামের মফিজ মাতুব্বরের ছেলে মো. সুমন (৩০)। তারা গাছা থানার সাইনবোর্ড এলাকার খন্দকার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল শাফী উল্লাহ বুলবুল জানান, ঘর ভাড়া নেওয়ার কথা বলে জুলি ও তুলি দুইবোন গত ১৬ জানুয়ারি শরীফপুর এলাকার আশরাফ আলীর বাসায় যায়। ঘর পছন্দ হয়েছে জানিয়ে শনিবার সকাল ৮টার দিকে ভাড়ার টাকা অগ্রিম দিতে যায় তারা। এক পর্যায়ে আশরাফ আলী ও তার পরিবারের সদস্যদের তারা কৌশলে ওষুধ মিশ্রিত জুস খাইয়ে অচেতন করে। পরে গৃহকর্তার ১৬ মাসের শিশু শাহরিয়া ইসলাম আরাফকে অপহরণ এবং বাসায় থাকায় নগদ টাকা, স্বর্ণলংকার ও মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায়। দীর্ঘসময় অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পাশের বাসার লোকজন তাদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে সুস্থ করেন। সন্ধ্যায় অপহরনকারীরা শিশুটির মুক্তিপণ বাবদ মোবাইলে পরিবারের সদস্যদের কাছে ২০ লাখ টাকা দাবি করেন। টাকা না পেলে শিশু আরাফের কিডনি বিক্রি ও হত্যার হত্যার হুমকি দেয়।

ঘটনাটি আরাফের পরিবার র‌্যাব-১ কে জানায়। র‌্যাব বিকাশে টাকা দেয়ার জন্য জাল পাতে। রাত সাড়ে ১১টার দিকে টাকা নিতে এসে আটক হয় দুইবোন জুলি ও তুলি। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে আমিনুল ও সুমনের ভাড়া বাড়ি থেকে শিশুটি আরাফ এবং খোয়া যাওয়া স্বর্ণালংকার ও ৪টি মোবাইল উদ্ধার হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network