১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

চলাচলের পথ বন্ধ, কাঁটার বেড়ায় অবরুদ্ধ এক অসহায় পরিবার

আপডেট: মে ৬, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরগুনা প্রতিনিধি:: কাঁটাযুক্ত বেড়ায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বরগুনার আমতলী উপজেলার আঙ্গুলকাটা গ্রামের একটি অসহায় পরিবার। বাড়িতে চলাচলের পথ বন্ধ করে কাঁটার বেড়া দেওয়ার প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশী আব্বাস খলিফা ও তার লোকজন শাহিন মিয়াকে (২৫) মারধর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্বজনরা আহত শাহিনকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেছেন।

জানা গেছে, গত ১৫ দিন আগে উপজেলার আঙ্গুলকাটা গ্রামের আব্বাস খলিফা প্রতিবেশী শাহীন মিয়ার বসতবাড়ির চলাচলের পথ বন্ধ করে বাঁশ দিয়ে কাঁটার বেড়া দেয়। এতে শাহীনের বসতঘরে চলাচলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বাধ্য হয়ে ভুক্তভোগী শাহীন আজ বুধবার সকালে প্রতিবেশী আব্বাস খলিফার কাছে কাঁটাযুক্ত বেড়া দেওয়ার বিষয়টি জানতে চায়। এতে আব্বাস খলিফা ক্ষিপ্ত হয়ে তার লোকজন নিয়ে প্রতিবেশী শাহীনকে বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। স্বজনরা আহত অবস্থায় শাহীনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহত শাহীন বলেন, গত ১৫ দিন ধরে আমার বসতবাড়িতে চলাচলের পথে বাঁশ দিয়ে কাঁটাযুক্ত বেড়া দিয়ে রেখেছে প্রতিবেশী আব্বাস খলিফা। চলাচলের পথ বন্ধ করে দেওয়ার কারণে আমি বাড়ি থেকে বের হতে পারছি না। আজ সকালে তার কাছে আমি এর কারণ জানতে চাইলে আমাকে মেরে রক্তাক্ত করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার দাবি করছি।

প্রতিবেশী আব্বাস খলিফা চলাচলের পথে কাঁটাযুক্ত বেড়া দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমার জমিতে আমি বেড়া দিয়েছি এতে শাহীনের চলাচলে কোনো বাধার সৃষ্টি হয়নি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. মো. ইমদাদুল হক চৌধুরী বলেন, আহত শাহীনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন রয়েছে। তাকে যথাযথ চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহ আলম হাওলাদার মুঠোফোনে বলেন, এ বিষয়ে এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network