১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

বাংলাদেশকে ফলোঅন করাবে নিউজিল্যান্ড!

আপডেট: জানুয়ারি ১০, ২০২২

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

আপডেট নিউজ খেলাধুলা: মাউন্ট ম্যাঙ্গানুইয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলো না বাংলাদেশ। বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়েও চরমভাবে ব্যর্থ হলো মুমিনুল হকরা। প্রথম টেস্টে কোণঠাসা কিউইরা দ্বিতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়ালো চ্যাম্পিয়নরূপে। টেস্টে কেন তারা বিশ্বসেরা তার প্রমাণ মিলেছে এক সপ্তাহের ব্যবধানে। ব্যাটিংয়ের পর বোলিংয়েও আগুন ছড়িয়েছে স্বাগতিকরা।

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে রানের পাহাড় গড়েছিল কিউইরা। অধিনায়ক টম লাথামের ২৫২ ও ডেভন কনওয়ের ১০৯ রানে ভর করে ৬উইকেটে ৫২১ রানে ইনিংস ঘোষণা করে তারা। প্রায় পাঁচ সেশন ব্যাট করে বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানায় স্বাগতিকরা।

আজ সোমবার সিরিজের শেষ টেস্টের দিনে কিউইদের বিশাল লিড তাড়ায় শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে টাইগাররা। হতশ্রী ব্যাটিংয়ে মাত্র ১১ ওভারে ২৭ রান তুলতেই চার টপ অর্ডার ব্যাটারকে হারায় সফরকারীরা। দেড় সেশনে ৪১ ওভার দুই বলে ১২৬ রান তুলতে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ফলোঅনে পড়ে বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে ৩৯৫ রানে বিশাল লিড ধরে রাখল কিউইরা। একই পাঁচ উইকেট শিকার করেন বোল্ট।

ইনিংসের শুরুতেই হোঁচট খায় বাংলাদেশ। মাত্র ৭ রানের মাথায় ফেরেন ওপেনার সাদমান ইসলাম। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই এই ব্যাটারকে ভুল করতে বাধ্য করেন ট্রেন্ট বোল্ট। কিউই পেসারের ফাঁদে পড়ে স্লিপে থাকা রস টেইলরের হাতে বলবন্দি করেন সাদমান (৭)।

অভিষিক্ত ওপেনার নাঈম শেখ শুরু থেকেই অস্বস্তিতে ভুগতেছিলেন। ব্যাটে বলে ঠিকঠাক মিলাতে পারছিলেন না তিনি। তৃতীয় ওভারে টিম সাউদির বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন তিনি। ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্টে শূন্য রানে সাজঘরের পথ ধরেন এই ব্যাটার।

তিনে আসা নাজমুল হোসেন শান্তও ফেরেন ব্যর্থ হয়ে। ৬ষ্ঠ এই ব্যাটারকে দ্বিতীয় শিকার বানান ট্রেন্ট বোল্ট। মাত্র ৪ রানে ফেরেন তিনি। পরের ওভারে অধিনায়ক মুমিনুল হককে শূন্য রানে ফেরান সাউদি। মাত্র ১১ রানে চার ব্যাটারকে হারায় বাংলাদেশ।

চা বিরতির পর দিনের শেষ সেশনে আবারো বোল্টের আক্রমণ। এবার ফিরলেন লিটন দাস। বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপের সব আশা ভরসা কেড়ে নেন বোল্ট-সাউদিরা।

ষষ্ঠ উইকেটের জুটিতে দারুণ প্রতিরোধের চেষ্টা করেন নুরুল হাসান সোহান ও ইয়াসির আলী রাব্বি। দলীয় ৮৭ রানের মাথায় এই যুগলের ৬০ রানের জুটি ভেঙে তৃতীয় শিকার তুলে নেন সাউদি। ৬২ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ৪১ রান করে ফেরেন সোহান।

দলীয় ১০৯ রানের মাথায় মেহেদী হাসান মিরাজকে ফিরিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের ৩০০তম উইকেট শিকারের মাইলফলক স্পর্শ করেন বোল্ট। নতুন ব্যাটার তাসকিন আহমেদকে ফেরান কাইল জেমিসন। দিনের সাত ওভার বাকি থাকলে জেমিসনের দ্বিতীয় শিকার হন ইয়াসির (৫৫)। শেষ ব্যাটার শরিফুলকে পঞ্চম শিকার বানান বোল্ট।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network