৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, সোমবার

পবিত্র কোরআনে মহামারী করোনাসহ বিভিন্ন রোগ-ব্যাধি ও গজব-আজাবের বিবরণ

আপডেট: মার্চ ২৩, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

আপডেট নিউজ:: তোমরা কি ভাবনা মুক্ত হয়ে গিয়েছো যে, আকাশে যিনি আছেন, তিনি তোমাদেরসহ ভূমিকে ধ্বসিয়ে দেবেন না? অথবা তোমাদেরকে ভূগর্ভে বিলীন করে দেবেন না? এমন অবস্থায় যে ভূগর্ভ তথা জমিন (আল্লাহর নির্দেশে) আকস্মিক ভাবে থরথর করে কাঁপতে থাকবে বা ভূমিকম্পকে চলমান করে দেয়া হবে।’- সূরা মূলক-১৬-১৭

গোটা বিশ্ব এখন থমকে গেছে। করোনা আতঙ্কে বিশ্ব মানুষ। ভয়ে জর্জরিত। নির্বাক চিকিৎসা বিজ্ঞানীরাও। কি হবে এ রোগের চিকিৎসা? মানুষ কাঁদছে। দু’হাত তুলে কাঁদছে।

করোনা আক্রান্ত ছেলের কাছে যেতে পারছে না মা, মায়ের কাছে যেতে পারছে না সন্তান। কী ভয়ঙ্কর বিশ্ব পরিস্থিতি। সবাই ব্যস্ত নিজেকে বাঁচাতে। যেন কেয়ামতের পূর্বাভাস। হ্যাঁ! কোরআন এ কথাই বলে। কেয়ামতের পূর্বে এ ধরণের ঘটনা ও পরিস্তিতির বিবরণ দিয়েছে আল কোরআন গত ১৪ শ’ বছর আগেই।

আসুন জেনে নিই করোনাসহ বিভিন্ন রোগ-ব্যাধি ও গজব-আজাবের ব্যাপারে কোরআন যা বলে-

১. সূরা আহযাব-৯

‘আর তারপর আমি তোমাদের শত্রুদের বিরুদ্ধে পাঠিয়েছিলাম এক ঝঞ্ঝা বায়ু এবং এক বাহিনী। এমন এক বাহিনী যা তোমরা চোখে দেখতে পাওনি।’

২. সূরা আনআম-৪২

‘তারপর আমি তাদের ওপর রোগব্যাধি, অভাব, দারিদ্র্য, ক্ষুধা চাপিয়ে দিয়ে ছিলাম, যেন তারা আমার কাছে নম্রতাসহ নতি স্বীকার করে।’

৩. সূরা ইয়াসীন-২৮-২৯

‘তারপর (তাদের এই অবিচার মূলক জুলুম কার্য করার পর ) তাদের বিরুদ্ধে আমি আকাশ থেকে কোনো সেনাদল পাঠাইনি। পাঠানোর কোনো প্রয়োজনও আমার ছিল না । শুধু একটা বিস্ফোরণের শব্দ হলো, আর সহসা তারা সব নিস্তব্ধ হয়ে গেল (মৃত লাশ হয়ে গেল )।’

৪. সূরা বাকারা-২৬

‘নিশ্চয়ই আল্লাহ মশা কিংবা এর চাইতেও তুচ্ছ বিষয় (ভাইরাস বা জীবাণু ) দিয়ে উদাহরণ বা তাঁর নিদর্শন প্রকাশ করতে লজ্জাবোধ করেন না।’

৫. সূরা আরাফ-৯৪

‘ওর অধিবাসীদেরকে আমি দুঃখ, দারিদ্র্য রোগ-ব্যধি এবং অভাব-অনটন দ্বারা আক্রান্ত করে থাকি। উদ্দেশ্য হলো তারা যেন, নম্র এবং বিনয়ী হয় ।

০৬. সূরা আলে ইমরান-১৭৮

‘আমি জালিমদেরকে সুযোগ দিই বা বেঁচে থাকার সময় দেই, তাদের পাপকে পাকাপোক্ত করার জন্য।’

 

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network